Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

সেবার নাম: বালাই নাশকের খুচরা ও পাইকারি বিক্রেতার লাইসেন্স প্রদান

 

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৩। উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা (SAPPO)

সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:আবেদনকারীকে খুচরা লাইসেন্সের আবেদনপত্র দাখিল করতে হয়। পরিদর্শক  আবেদনকারীর বিষয়টি সরেজমিনে যাচাই করে ইউএও-এর নিকট প্রতিবেদন দাখিল করেন। সকল কাগজপত্রসহ আবেদন জেলায় প্রেরণ করা হয়। জেলাতে উপ-পরিচালকের  অনুমোদনের পর পিপিএস কর্তৃক লাইসেন্স প্রদান করে উপজেলা অফিসে প্রেরণ করা হয়। অত:পর উপজেলা অফিসে হতে আবেদনকারীকে লাইসেন্স সরবরাহ করা হয়ে থাকে।

 

সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:১০—১৫ দিন;

১. বালাইনাশকের খুচরা বিক্রেতার নতুন লাইসেন্স এর ফি৩০০ টাকা ও নবায়ন ফি-২০০ টাকা,

২. বালাইনাশকের পাইকারি বিক্রেতার নতুন লাইসেন্স এর ফি ১০০০ টাকা ও নবায়ন ফি-৫০০ টাকা।

 

সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

 দি পেস্টিসাইড অর্ডিনেন্স, ১৯৭১, পেস্টিসাইড রুলস ১৯৮৫ এবং পেস্টিসাইড রুলস এমেন্ডমেন্ট ২০১০।

 

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।

 

 

সেবার নাম:প্রযুক্তি সহায়তা

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:

নতুন প্রযুক্তির ক্ষেত্রে উপজেলা/ ইউনিয়ন কমিটিকে অবহিত করা হয় এবং কৃষকদের নিয়ে অবহিতকরণ সভার আয়োজন করা হয়। দলীয় ও ব্যক্তিগত যোগাযোগের মাধ্যমে কৃষি প্রযুক্তি ও তথ্য সকল ধরণের কৃষকের নিকট পৌঁছে দেয়। পরীক্ষিত প্রযুক্তির ক্ষেত্রে প্রদর্শনী প্লট ও প্রগতিশীল/ আগ্রহী চাষি নির্বাচন এবং বিষয় ভিত্তিক ও এলাকা উপযোগী প্রযুক্তি নির্বাচন করে প্রযুক্তি বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। মাঠে প্রয়োগের উপযুক্ত প্রযুক্তি হস্তান্তরের (Technology Transfer) ক্ষেত্রে বিভিন্ন পর্যায়ে চাষিদের মাঠ প্রদর্শনী প্লট স্থাপন, পরিদর্শন/ পরামর্শ প্রদান, মনিটরিং, মাঠ দিবস উদযাপন ও র‌্যালির আয়োজন করা হয় এবং নমুনা শস্যকর্তন ও প্রতিবেদন তৈরি করা হয়। গুরুতর সমস্যা দেখা দিলে ফিডব্যাক সংগ্রহ করে বা কৃষকের মতামতের ভিত্তিতে ও প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে তা গবেষণা প্রতিষ্ঠানে এবং উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট প্রতিবেদন প্রেরণ করা হয়।

সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:

২৫-৩৩ দিন; ফ্রি

সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল অনুযায়ী

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।

সেবার নাম:

মান সম্মত বীজ উৎপাদনে সহায়তা

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:

আগ্রহী ও প্রগতিশীল চাষি এবং জমি নির্বাচন করে প্রশিক্ষণ প্রদান হয় এবং গুরুত্বপূর্ণ শর্ত ও সাবধানতা বিষয়ে জানানো হয়। প্রদর্শনী প্লট স্থাপন, মাঠ পরিদর্শন, পরামর্শ প্রদান, মনিটরিং, উপযুক্ত সময়ে রোগিং বা বাছাই করে মাঠ দিবস ও র‌্যালির আয়োজন করা হয় এবং উৎপাদিত বীজ/শস্য সংগ্রহ, গ্রেডিং ও সঠিকভাবে সংরক্ষণের বিষয়ে প্রয়োজনীয সহায়তা প্রদান করা হয়। পার্শ্ববর্তী প্রগতিশীল ও সাধারণ চাষিকে মানসম্মত বীজ (Truthful level) উৎপাদনে ও ব্যবহারে উৎসাহিত করা ও পরামর্শ প্রদান করা হয়। অন্যান্য চাষিদের মাঝে বীজ বিক্রয়/ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সহায়তা প্রদান করা হয়।

মধ্যবর্তী সময়ে বীজের মান যাচাই এবং পরবর্তী বছরে বীজ বপনের আগে বীজ শোধন (Seed treatment) নিশ্চিত করাসহ পরবর্তী বছর বীজ উৎপাদনে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করা হয়।

সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:

1-6 মাস; ফ্রি

 সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল অনুযায়ী

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।

 

সেবার নাম:

কৃষি ঋণ প্রাপ্তিতে সহায়তা প্রদান

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। সদর দপ্তরের উপ-পরিচালক (ফা: ইকো:)

২। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

৩। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৪। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৬। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:

ঋণ বিষয়ক সুবিধাদি এবং প্রযোজ্য সুদের হার বিষয়ে কৃষকদের অবহিত করা  হয়।কৃষকদের সাথে সভা করে ঋণ গ্রহণে ইচ্ছুক উপযুক্ত/আগ্রহী চাষির সংখ্যা জানা হয়। সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান হতে কৃষি ঋণ গ্রহণে ইচ্ছুক উপযুক্ত চাষির তালিকা তৈরি করে ইউনিয়ন কমিটি কর্তৃক আগ্রহী ও প্রগতিশীল কৃষকের উপযুক্ততা যাচাই পূর্বক অগ্রাধিকার তালিকা তৈরি এবং সুপারিশসহ উপজেলা কমিটিতে প্রেরণ করা হয়। উপজেলা কমিটিতে অগ্রাধিকার তালিকা উপস্থাপন, অনুমোদন এবং ঋণ প্রাপ্তির সুপারিশসহ সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে প্রেরণ করা হয়।সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান হতে কৃষি ঋণ প্রাপ্তিতে সহায়তা করা হয় এবং এর অনুকূলে ফসল উৎপাদন পরিকল্পনা প্রণয়নে সহায়তা প্রদান করা হয়।

বাংলাদেশ ব্যাংকে প্রধান প্রধান ফসলের উৎপাদন খরচ সরবরাহ করে ঋণ বিতরণের নীতিমালা প্রণয়নে সহায়তা প্রদান সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্তৃক ঋণের টাকা কৃষকের ব্যাংক একাউন্টে স্থানান্তরের ক্ষেত্রে সহায়তা করা হয়।

সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:

৬-৭ দিন; ফ্রি

সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল অনুযায়ী

 

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।

 

 

সেবার নাম:

মান সম্মত বীজ উৎপাদনে সহায়তা

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:

আগ্রহী ও প্রগতিশীল চাষি এবং জমি নির্বাচন করে প্রশিক্ষণ প্রদান হয় এবং গুরুত্বপূর্ণ শর্ত ও সাবধানতা বিষয়ে জানানো হয়। প্রদর্শনী প্লট স্থাপন, মাঠ পরিদর্শন, পরামর্শ প্রদান, মনিটরিং, উপযুক্ত সময়ে রোগিং বা বাছাই করে মাঠ দিবস ও র‌্যালির আয়োজন করা হয় এবং উৎপাদিত বীজ/শস্য সংগ্রহ, গ্রেডিং ও সঠিকভাবে সংরক্ষণের বিষয়ে প্রয়োজনীয সহায়তা প্রদান করা হয়। পার্শ্ববর্তী প্রগতিশীল ও সাধারণ চাষিকে মানসম্মত বীজ (Truthful level) উৎপাদনে ও ব্যবহারে উৎসাহিত করা ও পরামর্শ প্রদান করা হয়। অন্যান্য চাষিদের মাঝে বীজ বিক্রয়/ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সহায়তা প্রদান করা হয়।

মধ্যবর্তী সময়ে বীজের মান যাচাই এবং পরবর্তী বছরে বীজ বপনের আগে বীজ শোধন (Seed treatment) নিশ্চিত করাসহ পরবর্তী বছর বীজ উৎপাদনে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করা হয়।

সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:

1-6 মাস; ফ্রি

 সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল অনুযায়ী

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।

 

সেবার নাম:

কৃষি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সহায়তা

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। সদর দপ্তরের উপ-পরিচালক (ফা: ইকো:)

২। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

৩। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৪। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৬। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:

বিভিন্ন পরামর্শ কেন্দ্র থেকে কৃষি বিষয়ক যে কোন তথ্য, পরামর্শ, প্রযুক্তি ইত্যাদি বিষয়ে কৃষিকর্মী, কৃষক এবং জনসাধারণকে সহায়তা প্রদান করা হয়। সেজন্য কৃষককে পরামর্শ কেন্দ্র, কৃষি অফিস, এআইসিসি, ইউআইসিসি ইত্যাদি কেন্দ্র থেকে এবং গণমাধ্যমের সহায়তা নেয়ার জন্য উৎসাহ দেয়া হয় এবং নিয়ম কানুন সম্পর্কে জানানো হয়। তাছাড়া অনুষ্ঠান প্রচারের সময়সূচি, ই-মেইল, ওয়েবসাইট ইত্যাদি বিষয়ক ঠিকানা সম্বলিত পোস্টার, ফেস্টুন বিতরণ করা হয়। কৃষি বিষয়ক যেকোন তথ্য ডিএই/এআইএস’এর ওয়েবসাইট থেকে নেয়া যেতে পারে। বিভিন্ন তথ্য ও প্রযুক্তি জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন এবং ব্লক পর্যায়ে প্রদর্শন, সংরক্ষণ ও বিতরণ করা হয়। বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং অন্যান্য মাধ্যমে কৃষি তথ্য ও প্রযুক্তি কৃষিকর্মী, কৃষক ও সাধারণ জনগণের মধ্যে পৌঁছানো হয় ।

সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:

৫-১০দিন; ফ্রি

সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল অনুযায়ী

 

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।

 

 

সেবার নাম:

কৃষি পণ্য বিপণনে সহায়তা করা

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। সদর দপ্তরের উপ-পরিচালক (ফা: ইকো:)

২। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

৩। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৪। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৬। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এবং বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি ও গবেষণা সংস্হার সাথে সমন্বয়সাধন করে সভা অনুষ্ঠান করা হয়। কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের বাজারজাত করণে প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহও পরামর্শ প্রদান করা হয় । এনজিও এবং কৃষক দলের সদস্যদের নিয়ে Business Membership Organization (বিএমও), কৃষকদের নিয়ে সংগঠন তৈরি করা হয়।    ভাগ করা খুচরা/পাইকারি ক্রেতা নির্বাচন এবং বড় বাজারের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করা হয়। কৃষি পণ্য বিপণনের সুবিধার্থে বাজার তৈরি বা ছোট গোডাউন নির্মাণ করা হয়। কৃষকের উৎপাদিত দ্রব্যের নায্যমূল্যে বিক্রয়ের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করা হয়।

সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:

১-১২ মাস; ফ্রি

সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

 

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।

 

 

 

সেবার নাম:

প্রশিক্ষণ প্রদান

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা,

২। অতি: কৃষি কর্মকর্তা,

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা,

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা,

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

৬। কৃষি অফিসের অন্যান্য কমর্চারী

 সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা এবং অন্যান্য কর্মচারীদের মাধ্যমে        উপযুক্ত, প্রগতিশীল/ আগ্রহী চাষি নির্বাচন করা হয়। প্রশিক্ষণের জন্য বিষয়ভিত্তিক ও এলাকা উপযোগী প্রযুক্তি/ বিষয় নির্বাচন করা হয়। কৃষি বিষয়ক উন্নত প্রযুক্তি মডেল/ নমুনা/পদ্ধতি ইত্যাদি বিষয়ে কৃষকদেরকে হাতেকলমে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়ে থাকে।        মাঠে প্রয়োগের উপযুক্ত প্রযুক্তির ক্ষেত্রে হাতে কলমে প্রশিক্ষণের জন্য বিভিন্ন পর্যায়ে প্লট ও কৃষক নির্বাচনপূর্বক মাঠ পরিদর্শন/ পরামর্শ প্রদানসহ মনিটরিং করা হয় এবং  নমুনা শস্যকর্তন ও প্রতিবেদন তৈরি করা হয়ে থাকে। কৃষকের মতামতের ভিত্তিতে সমস্যা চিহ্নিতকরণ এবং গুরুতর সমস্যা দেখা দিলে তা গবেষণাগারে প্রেরণ এবং উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট  প্রতিবেদন প্রদানের মাধ্যমে অবহিত করা হয়।

 সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:

১-১২ মাস; ফ্রি

 সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

 

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।

 

 

সেবার নাম:

কৃষি পুণর্বাসনে সহায়তা

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

 সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:

ইউনিয়ন কমিটি কর্তৃক প্রগতিশীল কৃষকের উপযুক্ততা যাচাই পূর্বক নীতিমালা অনুযায়ী অগ্রাধিকার তালিকা তৈরি এবং সুপারিশসহ উপজেলা কমিটিতে প্রেরণ করা হয়। উপজেলা কমিটিতে অগ্রাধিকার তালিকা উপস্থাপন ও অনুমোদন করা হয়।ভর্তুকি প্রাপ্তির সুপারিশসহ তা সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে/ কোম্পানী এজেন্ট/ ডিলারের নিকট প্রেরণ করা হয়ে থাকে। উপকরণ (বীজ/ সার/ ডিজেল ইত্যাদি) অনুমোদিত তালিকা অনুযায়ী নির্ধারিত তারিখে কৃষকদের মাঝে বিতরণ করা হয়। অর্থের ক্ষেত্রে ১০ টাকার বিনিময়ে ব্যাংক একাউন্ট খোলা বা একাউন্ট থাকলে অর্থ ব্যাংক একাউন্টে স্থানান্তর করা হয়ে থাকে। 

 সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:

১-১২ মাস; ফ্রি

 সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী নীতিমালা অনুযায়ী

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।

 

 

 

সেবার নাম:

কৃষিতে ভর্তুকি ও উৎপাদনে সহায়তা প্রদান

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

 সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:

কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে উপকরণাদি কৃষকের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখার জন্য এবং উৎপাদন খরচ কমানোর জন্য বিভিন্ন সময় সরকারের দেয়া ভর্তুকি উপকরণাদি কৃষকদের মধ্যে বিতরণের লক্ষ্যে নিম্নবর্ণিত কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়:

- সরকারি আদেশ মোতাবেক জেলা কৃষি পুনর্বাসন বাস্তবায়ন কমিটি কর্তৃক উপজেলা ওয়ারী বিভাজন করা হয়।

- উপজেলা কমিটি কর্তৃক কার্যক্রম গ্রহণ ও ইউনিয়ন ওয়ারী বিভাজন করা হয়।

- খসড়া তালিকা তৈরি ও ইউনিয়ন পর্যায়ের সভায় অনুমোদন এবং উপজেলা কমিটিতে প্রেরণ করা হয়ে থাকে।

- প্রাপ্ত খসড়া তালিকা উপজেলা পর্যায়ে সভা ও উপজেলা কমিটি কর্তৃক অনুমোদন করা হয়।

- জেলা কমিটিতে অনুমোদন ও উপজেলা ওয়ারী বরাদ্দ দেয়া হয়।

- ইউনিয়ন ভিত্তিক চূড়ান্ত বরাদ্দ ও বিতরণের স্থান ও তারিখ নির্ধারণ করে থাকে। অত:পর কৃষককে অবহিতকরণ ও ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে টাকা প্রদান বা ডিলারের মাধ্যমে উপকরণ বিতরণ করা হয়।

 সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:

১০-১৫ দিন; ফ্রি

 সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী নীতিমালা অনুযায়ী

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।

 

 

সেবার নাম:

১০ টাকার বিনিময়ে ব্যাংক হিসাব খুলতে সহায়তা

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

 সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কর্তৃক কৃষকদের অগ্রাধিকার তালিকা তৈরি করে ইউনিয়ন কৃষি কমিটির সভায় অনুমোদন ও উপজেলা কমিটিতে প্রেরণ করা হয়। সেখান থেকে প্রাপ্ত তালিকা উপজেলা কৃষি কমিটির সভায় অনুমোদন করে ব্যাংকে প্রেরণ করা হয়ে থাকে। ব্যাংক কর্তৃক দাখিলকৃত ডকুমেন্ট  ভিত্তিতে এবং উপজেলা কমিটির অনুমোদনের প্রেক্ষিতে  হিসাব খোলা হয়। উক্ত হিসাব নম্বর হতে কৃষক আর্থিক লেনদেন করতে পারে।

 সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:

৪-৫ দিন; ফ্রি

সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

সরকারের নির্বাহী আদেশ অনুযায়ী

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।

 

 

সেবার নাম:

কৃষি উপকরণ সহায়তা

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী:

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

 সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি:

কৃষক কর্তৃক উপকরণের জন্য আবেদনের প্রেক্ষিতে চাহিদা নিরূপন করা হয়। নিরূপিত চাহিদা সম্পর্কে এসএএও কর্তৃক উপকরণের চাহিদা প্রস্ত্তত করা হয়। উপকরণের চাহিদা মাফিক তালিকা প্রস্ত্ততকরণ ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে প্রেরণ করা হয়ে থাকে। সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান কর্তৃক চাহিদার যৌক্তিকতা বিশ্লেষণ ও উপকরণ সরবরাহের নিমিত্ত ডিও প্রেরণ করা হয়। ডিও অনুযায়ী চাষিদের চূড়ান্ত তালিকা প্রণয়ন ও চাহিদাকৃত উপকরণ সরবরাহ করা হয়।

 সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ:

১৫-২০ দিন; ফ্রি

 সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন-/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা:

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা:উপ-পরিচালক।